এখন সময় :
,
PopularITLtd.com
মেনু |||

সেতুর পাটাতন ভেঙে দুই সপ্তাহ ধরে যান চলাচল বন্ধ

আমাদের সকাল ডেস্ক : টাঙ্গাইলের সখীপুর-বাটাজোর সড়কের কীর্তনখোলা ধুমখালি এলাকায় বেইলি সেতুর পাটাতন ভেঙে দুই সপ্তাহ ধরে সব ধরনের ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

 

দুই সপ্তাহ আগে একটি মালবাহী ট্রাক পারাপারকালে জরাজীর্ণ এই সেতুর পাটাতন ভেঙে যায়। ফলে দুর্ভোগে পড়েন স্থানীয়রা। দুই সপ্তাহ পার হলেও সংস্কার করা হয়নি সেতুর পাটাতন। যদিও ময়মনসিংহের ভালুকা, গফরগাঁও, গাজীপুরের শ্রীপুর ও মাওনা এলাকায় যাতায়াতের জন্য এই সেতু গুরুত্বপূর্ণ।

 

জানা যায়, সখীপুর সদর থেকে সিডস্টোর হয়ে ময়মনসিংহের ভালুকা, গফরগাঁও, গাজীপুরের শ্রীপুর ও মাওনা যাতায়াতের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক এটি। এই উপজেলা থেকে রাজধানীতে যাতায়াতের বিকল্প সড়কও এটি।

 

প্রতিদিন এই সড়কে মালবাহী ট্রাক, পিকআপ, প্রাইভেট ও মাইক্রোবাসসহ প্রায় হাজার খানেক সিএনজিচালিত অটোরিকশা চলাচল করে। সেতুর পাটাতন ভেঙে পড়ায় পণ্যবাহী ট্রাক, পিকআপ ও সাধারণ মানুষ বিপাকে পড়েছে।

 

স্থানীয় বাসিন্দা আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রায় ২০-২৫ বছর আগে কীর্তণখোলা ধুমখালি এলাকায় এই সেতুটি নির্মিত হয়। তবে দুই বছর ধরে জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে সেতুটি। ব্যবহার অনুপযোগী সেতুটি বছরে দফায় দফায় মেরামত করে সড়কের যাতায়াত ব্যবস্থা সচল রাখে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু দুই সপ্তাহ ধরে সেতুর পাটাতন ভেঙে গেলেও সংস্কার করা হয়নি।

 

এ বিষয়ে সখীপুর উপজেলা স্থানীয় সরকারের (এলজিইডি) প্রকৌশলী কাজী ফাহাদ কুদ্দুস বলেন, সেতুটি ভেঙে নতুন সেতু নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে প্রকল্প পাঠানো হয়েছে। আগামী জুন মাসের মধ্যেই ওই সেতু নির্মাণের অনুমোদন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া শিগগিরই সেতুর ভেঙে যাওয়া পাটাতন সংস্কার করে দ্রুত সড়কটি চলাচলের উপযোগী করা হবে।

 

 

 

আমাদের সকাল/সোহেল রানা

Share Button
সম্পাদক: রিনি জাহান
নির্বাহী সম্পাদক : মো. কাইছার নবী কল্লোল
যোগাযোগ : ১/এ, (২য় তলা), পুরানা পল্টন লেন, ঢাকা-১০০০
ফোন নম্বর : ০১৬২১০৩৫২৮৯, ০১৬৩৪৭৩১৩৪২
Email: amadarshokal24@gmail.com