এখন সময় :
,
PopularITLtd.com
মেনু |||

যশোর থেকেই ট্রেনে চড়ে যাওয়া যাবে কোলকাতা

আব্দুর রহিম রানা, নিজস্ব প্রতিবেদক (যশোর): খুলনা-কোলকাতা রুটে ট্রেন পরিসেবা চালুর বছর খানেক পর যশোরে যাত্রাবিরতির পারমিট পেল যাত্রিবাহী ট্রেন বন্ধন এক্সপ্রেস। ট্রেনটি এখন থেকে কোলকাতা যাওয়া-আসার সময় যাত্রী ওঠা-নামার জন্য তিন মিনিটের জন্য যশোরে থামবে।

 

আগামি সাত মার্চ থেকে যশোর জংশনে ট্রেনটির একটি স্টপেজ চালু হবে।

 

ফলে চুয়ান্ন বছর বাদে আবারো যশোর থেকে সরাসরি কোলকাতার ট্রেন যাত্রা শুরু হলো। বাংলাদেশ স্বাধীনের আগে পাকিস্তান আমলে ১৯৬৫ সাল পর্যন্ত যশোর অঞ্চল থেকে কোলকাতার সাথে সরাসরি ট্রেন যোগাযোগ ছিল। পরে ২০১৭ সালে খুলনা-কোলকাতা রুটে বন্ধন এক্সপ্রেস চালু হলেও যশোরে কোন স্টপেজ ছিল না।

 

স্টেশনের টিকিট কাউন্টার, মুঠোফোনে খুদে বার্তার পাশাপাশি অনলাইনেও এই ট্রেনের টিকিট সংগ্রহ করা যাবে।

 

যশোর স্টেশন আন্তজার্তিক মানের এই ট্রেনটির ৭৫টি আসন বরাদ্দ পেয়েছে। পয়লা মার্চ থেকে ট্রেনের টিকিট মিলবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার যশোর রেলওয়ে জংশনের স্টেশন মাস্টার পুষ্পল কুমার চক্রবর্তীর কাছে বন্ধন এক্সপ্রেসের যশোর স্টপেজ চালুর ব্যাপারে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে। বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন স্বাক্ষরিত ওই চিঠির বরাতে এসব তথ্য জানা গেছে।

 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ১৬ নভেম্বর কলকাতা-খুলনা রুটে ৪৫৬ আসনের আন্তর্জাতিক মানের যাত্রিবাহী ট্রেন ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’ চালু হয়। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এ ট্রেনটির কেবিনে সিট ভাড়া দেড় হাজার টাকা ও চেয়ার কোচের ভাড়া এক হাজার টাকা (ভ্রমণকর ৫০০ টাকাসহ)।

 

যশোর রেলওয়ে জংশনের স্টেশন মাস্টার পুষ্পল কুমার চক্রবর্তী জানান, খুলনা থেকে কোলকাতা পর্যন্ত ট্রেনের যে সিট ভাড়া রয়েছে, যশোর থেকেও সেই ভাড়া পরিশোধ করে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। এখনও পর্যন্ত সেই নির্দেশনায় রয়েছে। কলকাতা-খুলনা ট্রেন ৭ মার্চ থেকে যশোর স্টেশনে তিন মিনিটের জন্য দাঁড়াবে। পাসপোর্ট, ভিসা ও টিকিট দেখে যাত্রীদের ট্রেনে ওঠানো হবে। বেনাপোল স্টেশনে নিয়ে ইমিগ্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

 

জানা যায়, চালুর পর থেকে যাত্রীরা এ ট্রেনে করে সরাসরি খুলনা-কলকাতা যাতায়াত করছেন। বেনাপোলে যাত্রীর পাসপোর্ট, ভিসাসহ ইমিগ্রেশনের যাবতীয় কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করা হয়। সপ্তাহের প্রতি বৃহস্পতিবার সকালে ট্রেনটি কলকাতা থেকে ছেড়ে আসে। আবার বিকালে খুলনা থেকে
কলকাতার উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

 

এদিকে, শিগগিরি ঢাকা থেকে যশোর-বেনাপোল হয়ে সরাসরি কোলকাতায় যাত্রিবাহী ট্রেন সার্ভির চালুর খবর পাওয়া গেছে। ঢাকা থেকে কোলকাতার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা ট্রেনটি যশোর জংশন হয়ে তারপর কোলকাতায় রওয়ানা হবে বলে জানা গেছে। তবে ঢাকা থেকে যশোর জংশন হয়ে কোলকাতায় ট্রেন সার্ভির চালুর ব্যপারে খবর থাকলেও উচ্চ পর্যায় থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কোন কিছু জানা যায়নি। তাই এ ধরনের ট্রেন চালুর ব্যপারে কেউ আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করেননি। তবে তারা বলেছেন, অসমর্থিত বিভিন্ন সূত্রে জেনেছি আগামি দুই মাসের মধ্যে ঢাকা-বেনাপোল-কোলকাতা ট্রেন সার্ভিস চালু হতে যাচ্ছে। আর চালু হলে যশোর জংশনেও সেই ট্রেনের স্টপেজ চালু হবে।

 

বাহান্ন বছর পর খুলনা কোলকাতা রুটে আন্তর্জাতিক মানের যাত্রীবাহি ট্রেন সার্ভিস বন্ধন এক্সপ্রেস চালু হয়। যশোর ষ্টেশনে যাত্রাবিরতি করবে ট্রেনে চেপে কোলকাতায় যাওয়ার সুযোগ সৃষ্টি হোল।

 

 

আমাদের সকাল/এসআর

Share Button
সম্পাদক: রিনি জাহান
নির্বাহী সম্পাদক : মো. কাইছার নবী কল্লোল
যোগাযোগ : ১/এ, (২য় তলা), পুরানা পল্টন লেন, ঢাকা-১০০০
ফোন নম্বর : ০১৬২১০৩৫২৮৯, ০১৬৩৪৭৩১৩৪২
Email: amadarshokal24@gmail.com