এখন সময় :
,
PopularITLtd.com
মেনু |||

ভারতে তিন ওপেনারের দেড়শতে ফিরে এলো বাংলাদেশের খুলনা টেস্ট

আমাদের সকাল ডেস্ক : বিশাখাপত্তমে চলছে স্বাগতিক ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার প্রথম টেস্ট। ম্যাচের তিন দিন পেরিয়ে গেলেও শেষ হয়নি দুই দলের প্রথম ইনিংস। এখনও পর্যন্ত দাপট দেখাচ্ছেন ব্যাটসম্যানরাই। যার নেতৃত্বে রয়েছেন আবার ওপেনাররা। এরই মধ্যে ম্যাচের প্রথম দুই ইনিংসেই ৩ সেঞ্চুরি বেরিয়ে এসেছে দুই দলের ওপেনারদের ব্যাট থেকে।

 

ভারতের মাটিতে সবশেষবার যখন খেলতে এসেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা, সেবার চার ম্যাচের সিরিজে তাদের সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ ছিলো মাত্র ২১৪ রান। ঐ একবারই তারা পেরিয়েছিল ২০০ রান। অথচ বছর চারেক পর এবার এরই মধ্যে ৮ উইকেট হারিয়ে ৩৬৫ রান করে ফেলেছে প্রোটিয়ারা। এতে সবচেয়ে বড় অবদান ওপেনার ডিন এলগার ও উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি ককের।

 

ম্যাচের প্রথম ইনিংসে দুই ওপেনারের সেঞ্চুরিতে ভর স্বাগতিকরা দাঁড় করায় ৫০২ রানের বিশাল সংগ্রহ। মায়াঙ্ক আগারওয়াল ২১৫ এবং রোহিত শর্মা করেন ১৭৬ রান। জবাবে কম যায়নি সফরকারীরাও। ডিন এলগার ও ডি ককের সেঞ্চুরিতে তারাও জবাব দিচ্ছে সমানে সমান। আউট হওয়ার আগে প্রোটিয়া ওপেনার এলগার ১৬০ এবং ডি কক খেলেন ১১১ রানের ইনিংস।

 

আর এতেই হয়েছে অসাধারণ এক কীর্তি। প্রায় দেড়শ বছরের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে একই ম্যাচে তিন ওপেনারের দেড়শ রানের ইনিংস খেলার নজির রয়েছে মাত্র ৪টি। যার সবশেষটিই হলো বিশাখাপত্তম টেস্টে।

 

তবে এর আগে যেবার এক ম্যাচে তিন ওপেনার করেছিলেন দেড়শ’র বেশি, সেটি ছিল বাংলাদেশে। ২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে খুলনা টেস্টে পাকিস্তানের ওপেনার মোহাম্মদ হাফিজ এবং স্বাগতিক বাংলাদেশের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস খেলেছিলেন দেড়শ রানের ইনিংস।

 

সে ম্যাচে আগে ব্যাট করে বাংলাদেশ করেছিল ৩৩২ রান। জবাবে হাফিজের ২২৪ রানের ইনিংসে ভর করে পাকিস্তান পায় ২৯৬ রানের বিশাল লিড। এত বড় লিডের নিচে চাপা পড়ে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ইনিংস ইতিহাস গড়েন তামিম ও ইমরুল। দুজনের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৩১২ রান, যা ছিলো তখনকার সময়ে টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের জুটি। সে ইনিংসে তামিম ২০৬ ও ইমরুল করেন ঠিক ১৫০ রান।

 

এক ম্যাচে তিন ওপেনারের দেড়শ রান করার বাকি দুই ঘটনাই দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচে। ১৯৪৮ সালে জোহানেসবার্গ টেস্টে দুই ইংলিশ ওপেনার স্যার লেন হাটন ১৫৮ ও সাইরিল ওয়াশব্রুক ১৯৫ এবং দক্ষিণ আফ্রিকান ওপেনার এরিক রোয়ান ১৫৬ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন।

 

এরপর ২০০৩ সালে বার্মিংহাম টেস্টে গ্রায়েম স্মিথ তার ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ২৭৭ এবং হার্শেল গিবস খেলেন ১৭৯ রানের ইনিংস। বিপরীতে ইংলিশ ওপেনার মাইকেল ভনের ব্যাট থেকে আসে ১৫৬ রানের ইনিংস।

 

আমাদের সকাল/মাহমুদ

Share Button
সম্পাদক: রিনি জাহান
নির্বাহী সম্পাদক : মো. কাইছার নবী কল্লোল
যোগাযোগ : ১/এ, (২য় তলা), পুরানা পল্টন লেন, ঢাকা-১০০০
ফোন নম্বর : ০১৬২১০৩৫২৮৯, ০১৬৩৪৭৩১৩৪২
Email: amadarshokal24@gmail.com