এখন সময় :
,
PopularITLtd.com
মেনু |||

ঘরের মাটিতে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়াতে পারলেন না কিউইরা

স্পোর্টস ডেস্ক : সিরিজের ফলটা অন্যরকম হতে পারতো। প্রথম দুই ম্যাচ ভারত জিতলেও সিরিজের তৃতীয় ও চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে বিজয়ী দল হিসেবে নাম থাকতে পারতো নিউজিল্যান্ডের। দুই ম্যাচেই স্নায়ুচাপে ভেঙে পড়ে কিউইরা। শেষ ওভারে এসে বিসর্জন দেয় স্বপ্ন।

শেষ দুই টি-টোয়েন্টিতেই নিশ্চিত জয়ের পথে থাকা নিউজিল্যান্ড শেষ ওভারের ভুলে সুপার ওভারে নিয়ে গেছে ম্যাচ। আর সেই সুপার ওভারে ভারত হেসেখেলে হারিয়ে দিয়েছে স্বাগতিকদের। ফলে ৪-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই আজ (রোববার) মাউন্ট মুঙ্গানুইতে খেলতে নামে বিরাট কোহলির দল। নিউজিল্যান্ড নামে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়ানোর লক্ষ্যে।

সেটা আর সম্ভব হয়নি। পাঁচ ম্যাচের সব কটিতেই হারের লজ্জা পেতে হলো স্বাগতিকদের। পঞ্চম ও শেষ টি-টোয়েন্টিটিও ৭ রানে জিতে কিউইদের ৫-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করেছে ভারত।

এই ম্যাচটিতেও শেষ ওভার পর্যন্ত সম্ভাবনা টিকে ছিল নিউজিল্যান্ডের। শেষ দুই ওভারে দরকার ছিল ২৪ রান, হাতে ২ উইকেট। জাসপ্রিত বুমরাহ ১৯তম ওভারটিতে মাত্র ৩ রান দিয়ে ১ উইকেট দিয়ে ভারতকে স্বস্তি এনে দেন।

তবে শার্দুল ঠাকুরের শেষ ওভারে দ্বিতীয় আর চতুর্থ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ জমিয়ে তুলেছিলেন ইশ সোধি। যদিও শেষ রক্ষা হয়নি। পঞ্চম বলটি মিস করেন, শেষ বলে নিতে পারেন মাত্র এক রান।

১৬৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে অবশ্য শুরুতেই হোঁচট খেয়েছিল নিউজিল্যান্ড। ১৭ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে বসে স্বাগতিকরা। সেখান থেকে দলকে টেনে তুলেন টিম শেইফার্ট আর রস টেলর। ৩০ বলে ৫০ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে আউট হন শেইফার্ট। টেলর টিকে ছিলেন ১৮তম ওভার পর্যন্ত। ৪৭ বলে ৫৩ রান করে তিনি ফেরার পরই আসলে ম্যাচটা হাতছাড়া হয়ে যায় কিউইদের।

এর আগে রোহিত শর্মার ৪১ বলে ৬০ আর লোকেশ রাহুলের ৩৩ বলে ৪৫ রানের ঝড়ো দুই ইনিংসে ভর করে ৩ উইকেটে ১৬৩ রানের লড়াকু সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছিল ভারত। শ্রেয়াস আয়ার অপরাজিত থাকেন ৩১ বলে ৩৩ রানে।

        আমাদের সকাল/রানা

সম্পাদক: রিনি জাহান
নির্বাহী সম্পাদক : মো. কাইছার নবী কল্লোল
যোগাযোগ : ১/এ, (২য় তলা), পুরানা পল্টন লেন, ঢাকা-১০০০
ফোন নম্বর : ০১৬২১০৩৫২৮৯, ০১৬৩৪৭৩১৩৪২
Email: amadarshokal24@gmail.com