এখন সময় :
,
PopularITLtd.com
মেনু |||

অবসর ঘোষণার পর বিধ্বংসী গেইল!

আমাদের সকাল ডেস্ক : কদিন আগেই অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন আমুদে ভঙ্গিতে, ‘বিশ্বকাপের পর থামতে চাই। অবশ্যই ৫০ ওভারের ক্রিকেটে। বিশ্বকাপই আমার শেষ। তরুণদের মজা করার সুযোগ করে দিতে চাই। মাঠের বাইরে বসে ওদের মজা নেওয়া দেখব।’ কিন্তু এই ৩৯ বয়সে এসেও ‘বুড়ো’ ক্রিস গেইল নিজেই যেভাবে ওয়ানডেতে মজা লুটছেন, কে বলবেন এই ওপেনার সত্যিই বিশ্বকাপের পর অবসর চলে যাবেন!

 

সিরিজ শুরুর আগে সব ধরনের ক্রিকেট মিলিয়ে মোট ৪৭৬টা ছক্কা ছিল গেইলের। ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি ছক্কা মারার এই রেকর্ডে পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদির সঙ্গে যৌথভাবে প্রথম স্থানে ছিলেন তিনি। কিন্তু ছক্কা মারার রেকর্ডটা কারও সঙ্গে ভাগাভাগি করতে হবে, এটি যেন পছন্দ নয় তাঁর! ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজকে বেছে নিলেন রেকর্ডটা একেবারে নিজের করে নিতে। যে সিদ্ধান্ত, সেই কাজ! সিরিজের চতুর্থ ম্যাচ শেষেই ৩০টা ছক্কা মারা হয়ে গেছে তাঁর, সব মিলিয়ে গেইলের ছক্কা এখন ৫০৬টি! সব ধরনের ক্রিকেট মিলিয়ে ৫০০ ছক্কা মারা প্রথম ক্রিকেটার তিনিই।

 

মরগান-বাটলারদের ঝড়ে কাল গ্রেনাডায় সিরিজের চতুর্থ ওয়ানডেতে প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৪১৯ রানের পাহাড় গড়েছিল ইংল্যান্ড। রানের পাহাড়ে চাপা পড়েনি, উল্টো চোখে চোখ রেখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ জবাব দিয়েছে। উইকেটে যে একজন গেইল ছিলেন! স্টোকসের বলে বোল্ড হয়ে ফেরার আগে ৯৭ বলে ১৬২ রানের বিস্ফোরক এক ইনিংস খেলেছেন। জ্যামাইকান ওপেনার বুঝিয়েছেন, তাঁর অবসরের ঘোষণার অর্থ এই নয়, তিনি ফুরিয়ে গেছেন! ১৪ ছক্কা আর ১১ চারে ১৬২ রান করা গেইল বুঝিয়েছেন ক্যারিয়ারের গোধূলিতে দাঁড়িয়ে তিনি পূর্ণ কিরণে আলো ছড়াতে পারেন। কাল ১২৮ রানই নিয়েছেন জায়গায় দাঁড়িয়ে! ৫৫ বলে করা সেঞ্চুরিটা তার ওয়ানডে ক্যারিয়ারের দ্রুততম, আর উইন্ডিজ ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দ্বিতীয় দ্রুততম। ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের দ্রুততম সেঞ্চুরির সঙ্গে জুড়ে আছে বাংলাদেশের নাম। ১৯৯৯ সালে ৪৫ বলে বাংলাদেশের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেছিলেন ব্রায়ান লারা।

 

এই ইনিংস খেলেই ওয়ানডে রেকর্ডের বেশ কিছু পাতায় নিজের নাম নতুন করে লিখিয়েছেন গেইল। লারার পর প্রথম ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডের ১০ হাজারি ক্লাবের সদস্য হয়েছেন। ওয়ানডেতে গেইলের আগে ১০ হাজারি ক্লাবের সদস্য হয়েছেন আরও ১৩ জন। ১০ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন ছক্কা মেরে, যে কৃতিত্ব আগে ছিল শুধু সাবেক অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক রিকি পন্টিংয়ের, চার মেরে ১০ হাজারি ক্লাবের সদস্য হয়েছিলেন সাবেক লঙ্কান অধিনায়ক সনৎ জয়াসুরিয়া।

 

এই সিরিজে এখন পর্যন্ত ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩০টা ছক্কা মেরেছেন গেইল। কোনো ওয়ানডে সিরিজ বা টুর্নামেন্টেই এত বেশি ছক্কা মারার উদাহরণ নেই কারও। এর আগের রেকর্ডটাও গেইলেরই ছিল অবশ্য। ২০১৫ বিশ্বকাপে ২৬টা ছক্কা মেরেছিলেন। ওয়ানডে ক্রিকেটে এ নিয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মোট ৭১টি ছক্কা মারা হয়ে গেল তাঁর। কোনো নির্দিষ্ট প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে ওয়ানডেতে এত বেশি ছক্কা মারার রেকর্ড আর কারও নেই। রেকর্ডটা করতে তিনি পেছনে ফেলেছেন রোহিত শর্মা ও শহীদ আফ্রিদিকে। ছক্কা মারার ক্ষেত্রে রোহিতের প্রিয় প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৬৬টি ছক্কা মেরেছেন তিনি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আফ্রিদি মেরেছেন ৬৩টি।

 

সব ধরনের ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি ছক্কা মারার রেকর্ডটা নিজের করে নিলেও শুধু ওয়ানডেতে বেশি ছক্কা মারার রেকর্ডটা কিন্তু এখনো আফ্রিদির দখলেই আছে। ওয়ানডেতে আফ্রিদির ছক্কা যেখানে ৩৫১টা, গেইলের ৩০৫টা। অবসরের ঘোষণা দিয়ে গেইল যেভাবে ছন্দে ফিরেছেন, বিশ্বকাপ শেষ হতে হতে সে রেকর্ডটা যে আফ্রিদির দখলে থাকবে, তার নিশ্চয়তা কোথায়!

 

 

আমাদের সকাল/এসআর

Share Button
সম্পাদক: রিনি জাহান
নির্বাহী সম্পাদক : মো. কাইছার নবী কল্লোল
যোগাযোগ : ১/এ, (২য় তলা), পুরানা পল্টন লেন, ঢাকা-১০০০
ফোন নম্বর : ০১৬২১০৩৫২৮৯, ০১৬৩৪৭৩১৩৪২
Email: amadarshokal24@gmail.com